রবিবার; ১৬ জুন, ২০২৪ খ্রি. Dashboard

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন দিন
সর্বশেষ :
হু হু করে বাড়ছে তিস্তার পানি, নদীপাড়ে আতঙ্ক কুড়িগ্রামের উলিপুরে নিরাপত্তা নিশ্চিতে ৩২টি সিসি ক্যামেরা বসালো পুলিশ ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে কুড়িগ্রামে ব্যস্ত সময় পার করছেন কামারেরা কুড়িগ্রামে বিভিন্ন পশুর হাটে জেলা পুলিশের নিরাপত্তা জোরদার কুড়িগ্রামের চর রাজিবপুরে সরকারি বিতরণকৃত চাল জব্দ
16 December

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

জলঢাকায় দিনে-দুপুরে উধাও বুড়িতিস্তার বালু

প্রকাশিত: রবিবার; ২৩ জুলাই, ২০২৩ খ্রি. - ১০:১৫ পি.এম. | দেখেছেন: ১৯১ জন।

জলঢাকায় দিনে-দুপুরে উধাও বুড়িতিস্তার বালু

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ষ্টাফ রিপোটার:

 

 

বালুমহল মাটি ব্যবস্থাপনা আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার গোলমুন্ডা ইউনিয়নের ঘাটের পার বুড়িতিস্তা নদীর খননকৃত বালু দিনে দুপুরে উধাও। মাটি খনন কাজে ব্যবহৃত যন্ত্র ভেকু দিয়ে উত্তোলন করে ট্রাক্টর টলিতে চোখের সামনে লক্ষ লক্ষ টাকার বালু অবৈধ ভাবে নিযে গেলেও দেখেও দেখছে না কেউ। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাজে ব্যবহারের নামে এ বালু বিক্রি হচ্ছে গাড়ি প্রতি ১৫শ থেকে ২ হাজার টাকায়। রবিবার(২৩ জুলাই) দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানের বড় ভাই হাফিজুর রহমান হাফির নেতৃত্বে এসব বালু বিক্রি হচ্ছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ঠিকাদারের কাছে।

সংবাদকর্মীদের উপস্থিতি টের পেয়ে মাটি খননকারী যন্ত্র ভেকু ও বালু বহনকারী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এর কিছুক্ষণ ঘটনাস্থলে চলে আসেন ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা গণেশ চন্দ্র রায়। ওই কর্মকর্তার চোখের সামনে বালু বহনকারী ট্রাক্টর গুলি পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

এদিকে বাংলাদেশ পুলিশের রংপুর রেঞ্জের ডিআইজির ফুফাতো ভাই পরিচয় দানকারী ইউপি চেয়ারম্যানের বড় ভাই হাফিজুর রহমান হাপি সাংবাদিকদের উপর চড়াও হয় এবং অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেন । তিনি বলেন, ডিআইজি আমার ফুফাতো ভাই, বড় বড় পত্রিকার সম্পাদকদের সাথে আমার ভালো সম্পর্ক। বালু নিতে আমাকে লিখিত অনুমতি লাগেনা। তাছাড়া তিনি ওই এলাকার চেয়ারম্যানের বড় ভাই। তিনি বলেন, এসব বালু নদীর বাঁধ নির্মাণ কাজের জন্য নিয়ে যাচ্ছি, এতে আপনাদের সমস্যা কোথায়।

ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা গণেশচন্দ্র রায়ের সাথে ঘটনাস্থলে কথা বলতে চাইলে তিনি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

এবিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি এ বি এম সারোয়ার রাব্বী বলেন, আমি খবর পেয়ে ওই ইউনিয়নের তহসিলদার কে পাঠিয়েছি। তিনি ঘটনাস্থলে আছেন, অবস্থা দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন