রবিবার; ১৬ জুন, ২০২৪ খ্রি. Dashboard

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন দিন
সর্বশেষ :
হু হু করে বাড়ছে তিস্তার পানি, নদীপাড়ে আতঙ্ক কুড়িগ্রামের উলিপুরে নিরাপত্তা নিশ্চিতে ৩২টি সিসি ক্যামেরা বসালো পুলিশ ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে কুড়িগ্রামে ব্যস্ত সময় পার করছেন কামারেরা কুড়িগ্রামে বিভিন্ন পশুর হাটে জেলা পুলিশের নিরাপত্তা জোরদার কুড়িগ্রামের চর রাজিবপুরে সরকারি বিতরণকৃত চাল জব্দ
16 December

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সিলেটে আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধে ‘কোরআন’ পুড়ানোর অভিযোগ

প্রকাশিত: মঙ্গলবার; ৮ আগস্ট, ২০২৩ খ্রি. - ০৪:৪২ পি.এম. | দেখেছেন: ২৭৯ জন।

সিলেটে আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধে ‘কোরআন’ পুড়ানোর অভিযোগ

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

অনলাইন ডেক্স:

 

 

রবিবার (৬ আগস্ট) রাত ১১টায় হঠাৎ উত্তাল হয়ে পড়েছে সিলেট মহানগরের আখালিয়া এলাকা।

আখালিয়ার ধানুপাড়াস্থ আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের প্রিন্সিপাল ও চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পবিত্র কুরআন শরিফ পুড়ানোর অভিযোগ তুলে সে এলাকায় স্থানীয় জনতার মাঝে উত্তেজনা দেখা দেয়।

খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের প্রিন্সিপাল ও চেয়ারম্যানকে প্রতিষ্ঠানটির একটি কক্ষে আটকে রেখে ক্ষুব্দ জনতার হাত থেকে রক্ষা করে।

তবে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে পুলিশের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তাছাড়া এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এলাকাবাসীর অভিযোগ ছাড়া কেউ পবিত্র কোরআন শরীফ পুড়ানোর সত্যতা নিশ্চিত করতে পারেনি।

সময় যত বাড়ছে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের বিশেষ টিম সিআরটিও ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে রাখা হয়েছে।

উত্তেজিনত জনতার একাংশ সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধের চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের বাধা দিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়। তবে আইডিয়াল স্কুলের চারদিকে শত শত উত্তেজিত জনতা অবস্থান করছেন এবং বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন।

এদিকে, ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর অনেকেই ফেসবুকে মন্তব্য করছেন- প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান ড. নুরুর রহমান একজন ধার্মিক মানুষ। তিনি কুরআন শরিফ পুড়ানোর মতো ন্যাক্কারজনক কাজ করতে পারেন না। 

প্রকৃত ঘটনা তদন্তের মাধ্যমে খুঁজে বের করার দাবি জানিয়েছেন তারা।

 

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন